BN

হেলেনা র‍্যাপ হত্যা

হেলেনার‍্যাপের হত্যাকাণ্ড হল ১৯৯২ সালের ২৪ শে মে সংঘটিত একটি ছুরিকাঘাত, যেখানে একজন ফিলিস্তিনি সন্ত্রাসবাদী, ইজরায়েলি উপকূলীয় শহর বাট ইয়ামের কেন্দ্রে ১৫ বছর বয়সী ইজরায়েলি স্কুলছাত্রী হেলেনা র‍্যাপকে হত্যা করে। ১৯৯০-এর দশকের শুরুতে ইজরায়েলে সংঘটিত ধারাবাহিক ছুরিকাঘাতে ইজরায়েলি জনগণকে হতবাক করে দেওয়া এই হামলা ছিল সবচেয়ে উল্লেখযোগ্য ছুরিকাঘাত, যা ইজরায়েলি জনগণের অনেকের কাছে সেই সময় তাদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তার অবনতির ইঙ্গিত দেয়।

বেন গুরিয়ন রাস্তায় হেলেনা র‍্যাপ স্মৃতিস্তম্ভ, ব্যাট ইয়াম
বেন গুরিয়ন রাস্তায় হেলেনা র‍্যাপ স্মৃতিস্তম্ভ, ব্যাট ইয়াম

. . . হেলেনা র‍্যাপ হত্যা . . .

১৯৯২ সালের ২৪ মে সকাল সাড়ে সাতটার দিকে ১৮ বছর বয়সী ফিলিস্তিনি জঙ্গি ফুয়াদ মুহাম্মদ আব্দুলহাদি আমরিন ১৫ বছর বয়সী ইজরায়েলি স্কুলছাত্রী হেলেনা র‍্যাপকে হত্যা করে। সে উপকূলীয় ইজরায়েলি শহর বাত ইয়ামের বেন-গুরিয়ন এবং জাবোটিনস্কি রাস্তার কোনে ছুরি দিয়ে তাকে আঘাত করে হত্যা করে। [1][2][3]

অপরাধীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল এবং যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল। ইসলামিক জিহাদ এই হামলার দায় স্বীকার করেছিল। ১৯৯৫ সালে ইসলামিক জিহাদের প্রতিষ্ঠাতা ফাতি শিকাকিকে লক্ষ্য করে হত্যা করার অন্যতম কারণ ছিল এই হামলা। [4]

এই হামলার পর, হাজার হাজার বাট ইয়াম অধিবাসী উল্লেখযোগ্য হস্তক্ষেপ ছাড়াই পাঁচ দিন ধরে শহরের রাস্তায় দাঙ্গা করে, সম্পত্তির ব্যাপক ক্ষতি করে এবং মাঝে মাঝে এলোমেলো আরব চেহারার পথচারীদের আক্রমণ করে।[5] দাঙ্গার আয়োজকদের মধ্যে ছিলেন বারুচ মারজেল, যাকে পরে দাঙ্গায় অংশ নেওয়ার জন্য ৮ মাসের প্রবেশনের শাস্তি দেওয়া হয়। ৫ দিন পর, যে সময় হেলেনা র‍্যাপের বাবা জেইভ র‍্যাপ দাঙ্গাকে উৎসাহিত করেন, তিনি শেষ পর্যন্ত দাঙ্গাকারীদের ছত্রভঙ্গ করতে সাহায্য করার জন্য পুলিশের অনুরোধে সাড়া দেন এবং এর ফলে দাঙ্গা কমে যায়। অর কমিশনে ইজরায়েলি পুলিশ প্রধান আসাফ হেফেৎজ র‍্যাপের হত্যার পর পুলিশ যেভাবে দাঙ্গা পরিচালনা করেছে তার সমালোচনা করেছেন এবং দাবি করেছেন যে দাঙ্গাঅনেক আগেই ছড়িয়ে দেওয়া উচিত ছিল। [6]

এই ঘটনার পর হেলেনার বাবা জেইভ র‍্যাপ তার মেয়েকে স্মরণ করা এবং ইজরায়েলি সন্ত্রাসী হামলার শিকার সংস্থার চেয়ারম্যান হিসেবে জনসাধারণের কার্যক্রমে তার জীবন উৎসর্গ করেন।[7]

১৯৯২ সালের ইজরায়েলি আইনসভার নির্বাচনের সময় সংঘটিত এই হামলার পর অনেক ইজরায়েলি রাজনীতিবিদ বাট ইয়ামে উপস্থিত হন এবং/অথবা এই হামলার বিষয়ে কথা বলেন। পুলিশ মন্ত্রী রনি মিলো এবং দক্ষিণপন্থী জাতীয়তাবাদী মোলেডেট দলের নেতা রেহাভাম জেইভি হেলেনা র‍্যাপের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়ায় উপস্থিত ছিলেন। লেবার পার্টির রাজনীতিবিদ শিমন পেরেস ব্যাট-ইয়ামে আসেন এবং কিছু উদ্বেগ সত্ত্বেও স্থানীয় বাসিন্দারা তাকে স্বাগত জানান। ইজরায়েলি জনগণের অধিকাংশই এই সময়ের মধ্যে ইজরায়েলিদের ব্যক্তিগত নিরাপত্তার অবনতির জন্য দক্ষিণপন্থী শামির সরকারকে দায়ী করেছে। বাট ইয়ামে সংঘটিত দাঙ্গার ভিডিও লেবার পার্টির নির্বাচনী বিজ্ঞাপনে দেখানো হয়েছে যা লিকুদ সরকারের নিরাপত্তা পরিস্থিতির অবনতিকে দায়ী করেছে। [8]

. . . হেলেনা র‍্যাপ হত্যা . . .

This article is issued from web site Wikipedia. The original article may be a bit shortened or modified. Some links may have been modified. The text is licensed under “Creative Commons – Attribution – Sharealike” [1] and some of the text can also be licensed under the terms of the “GNU Free Documentation License” [2]. Additional terms may apply for the media files. By using this site, you agree to our Legal pages . Web links: [1] [2]

. . . হেলেনা র‍্যাপ হত্যা . . .

Back To Top